1. admin@dailynewspaper71.com : admin :
  2. news@dailynewspaper71.com : news :
বুধবার, ২২ মে ২০২৪, ০৫:৪৬ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
মোবাইল কোর্টের মাধ্যমে অবৈধ গ্যাস সংযোগ উচ্ছেদ অভিযান। জোবিঅ-সোনারগাঁও। সোনারগাঁয়ে অ্যাম্বুলেন্স থেকে ৬০ হাজার পিস ইয়াবা উদ্ধার আটক ১। জল্পনা কল্পনা অবসান ঘটিয়ে চতুর্থমুখী মিল্টন সমাদ্দার ডিবির হাতে গ্রেফতার। সোনারগাঁ উপজেলা পরিষদ নির্বাচনকে সামনে রেখে কালামের সমর্থনে ডা: বিরু! নগদ ৪৯,০০,০০০/- জাল টাকা সহ ০২(দুই) জন আসামী গ্রেফতার! বন্দরে ভোটারদের আগ্রহের কেন্দ্রবিন্দুতে উপজেলা চেয়ারম্যান প্রার্থী মাকসুদ হোসেন! আপনাদের একাত্মতা ও স্বতঃস্ফূর্ত অংশগ্রহণ আমাদেরকে বিজয়ী করবে: মাহমুদুল হাসান শুভ! নারায়ণগঞ্জ সোনারগাঁ এসি ল্যান্ডের গাড়ির চাপায় ব্যবসায়ী নিহত! নির্বাচনের মাঠে থাকার ঘোষণা মাকসুদ হোসেনের। সোনারগাঁয়ে ১৮ কোটি টাকার সড়ক উন্নয়ন কাজের কয়েকটি প্রকল্পের উদ্বোধন
নোটিশঃ
নিয়মিত পত্রিকা পড়ুন বিজ্ঞাপন দিন

র‌্যাব-১১ কর্তৃক মাওয়া ও কাঁচপুর থেকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ডপ্রাপ্ত দুই আসামী গ্রেফতার!

  • Update Time : শনিবার, ২ সেপ্টেম্বর, ২০২৩
  • ৪৮ Time View

প্রতিদিন সংবাদপত্র ৭১. কম

বিশেষ প্রতিনিধি সোনারগাঁ

পরকীয়ার জেরে নিজ ছেলেকে হত্যার অভিযোগে যাবজ্জীবন কারাদন্ডে দন্ডিত ২ জনকে গ্রেফতার করেছে নারায়ণগঞ্জ র‌্যাব-১১।
গত ৩১ আগস্ট ২০২৩ তারিখ ০২৩০ ঘটিকায় মুন্সিগঞ্জ জেলার লৌহজং থানাধীন মাওয়া এলাকা হতে মোঃ ইউসুফ মোল্লা (৩৬), পিতাঃ হোসেন মোল্লা, সাং- উত্তর বিষকাটলি, থানা- ফরিদগঞ্জ, জেলা- চাঁদপুর’কে গ্রেফতার করা হয় এবং একইদিনে ফরিদগঞ্জ থানা, চাঁদপুরে হস্তান্তর করা হয়।
গ্রেফতারকৃত আসামীর সুত্র ধরে র‌্যাব-১১ এর পৃথক আরেকটি অভিযানে গত ০১ সেপ্টেম্বর ২০২৩ তারিখ ২৩০০ ঘটিকায় নারায়ণগঞ্জ জেলার সোনারগাঁও থানাধীন কাঁচপুর এলাকা হতে মোঃ মাহবুব মোল্লা (৩৮), পিতাঃ বিল্লাল মোল্লা,সাং- উত্তর বিষকাটলি, থানা- ফরিদগঞ্জ, জেলা- চাঁদপুর’কে গ্রেফতার করা হয়। আসামীর বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা প্রক্রিয়াধীন রয়েছে।
র‌্যাব জানায়, গত ২৩ আগস্ট ২০২৩ তারিখে চাঁদপুর জেলার চাঁদপুরের অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ আদালত হত্যায় জড়িত ৪ জনকে দণ্ডাদেশ প্রদান করে। এরই প্রেক্ষিতে বর্ণিত বিষয়ে র‌্যাব ছায়া তদন্ত শুরু করে। এক পর্যায়ে র‌্যাব-১১ এর একটি গোয়েন্দা দল গোপন তথ্যের মাধ্যমে গ্রেপ্তারি পরোয়ানাভুক্ত আসামীর অবস্থান সনাক্ত করতে সক্ষম হয়। ফলশ্রতিতে, র‌্যাব উক্ত আসামীকে গ্রেফতারের উদ্দেশ্যে গোয়েন্দা নজরদারী বৃদ্ধি করে।
মামলার বিবরণ থেকে র‌্যাব আরো জানায়, হত্যার শিকার আরিফ হোসেন তার মা খুকি বেগমের সাথে আসামি জয়নাল গাজীর পরকীয়া সম্পর্কের কথা জানতেন। এ বিষয়ে মা ও ছেলের সম্পর্কের অবনতি হয়। ২০১৫ সালের শুরুতে ছেলে আরিফ হোসেন প্রেমের সম্পর্ক করে পার্শ্ববর্তী উত্তর আলগী ইউনিয়নের মিজিবাড়ির আব্দুস সালাম মিজির মেয়ে আসমা আক্তারকে (১৯) বিয়ে করেন। তাদের বিয়ে মা খুকি বেগম প্রথমে মেনে না নিলেও এক পর্যায়ে মেনে নেন। এরপর মা, ছেলে ও ছেলের বউয়ের সাথে বিভিন্ন বিষয়ে ঝগড়াবিবাদ হতো। এরই মধ্যে মা খুকি বেগম ছেলেকে হত্যার পরিকল্পনা করেন। তারই আলোকে ২০১৫ সালের ১৬ নভেম্বর ছেলের বউ আসমা বেগমকে তার বাবার বাড়িতে পাঠিয়ে দেন। এরপর ১৮ নভেম্বর পরিকল্পিতভাবে মা খুকি বেগম নিজ গৃহে পরকীয়া প্রেমিক জয়নাল গাজী ও সহযোগীদের দিয়ে ছেলে আরিফকে ঘুমন্ত অবস্থায় হকিস্টিক দিয়ে পিটিয়ে, দা দিয়ে কুপিয়ে এবং ব্লেড দিয়ে কেটে মৃত্যু হয়েছে মনে করে ঘরের মেঝেতে ফেলে চলে যায়। পরদিন ১৯ নভেম্বর সকালে খুকি বেগম আরিফের স্ত্রী আসমাকে ফোন করে জানান, ডাকাতরা আরিফকে জখম করে ফেলে গেছে। আসমা তাৎক্ষণিক স্বামীর বাড়িতে চলে আসেন এবং আরিফকে উদ্ধার করে প্রথমে চাঁদপুর সরকারি জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে আসেন। সেখান থেকে ঢাকা নেওয়ার পথে মতলব ফেরিঘাটে পার হওয়ার সময় আরিফের মৃত্যু হয়।
এ ঘটনায় ভিক্টিমের স্ত্রী শাশুড়ি খুকি বেগমসহ অজ্ঞাতপরিচয় ব্যক্তিদের আসামি করে হাইমচর থানায় হত্যা মামলা দায়ের করেন যার মামলা নং- ০৫, তারিখ- ১৯(১১)২০১৫।
বিজ্ঞ অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ আদালত, চাঁদপুর বিচার শেষে আসামীদের বিরুদ্ধে আনীত দণ্ডবিধি ১৮৬০ এর ৩০২/৩৪ ধারার অপরাধ সন্দেহাতীতভাবে প্রমাণিত হওয়ায় গত ২৩ আগস্ট ২০২৩ তারিখে ভাড়াটিয়া খুনির মাধ্যমে আপন ছেলে হত্যার ঘটনায় দায়ের করা মামলায় মা খুকি বেগম (৫০) ও জয়নাল গাজীকে (৩৫) মৃত্যুদণ্ড এবং সহযোগী দুই আসামি ইউছুফ মোল্লা (৩৬) ও মাহবুব মোল্লাকে (৩৮) যাবজ্জীবন কারাদণ্ড প্রদান করে। একই সঙ্গে প্রত্যেক আসামিকে ৫০ হাজার টাকা করে জরিমানা এবং অনাদায়ে আরো ছয় মাসের কারাদণ্ড দেওয়া হয়।আসামীর স্বীকারোক্তি মতে, আইনশৃঙ্খলা বাহিনী হতে গ্রেফতার এড়াতে ঘটনার পর পরই ইউসুফ মোল্লা চাঁদপুর থেকে পালিয়ে মুন্সিগঞ্জের লৌহজং এ নতুন ঠিকানায় নির্মাণ শ্রমিক হিসেবে কাজ করতে থাকে এবং ঘটনার পর থেকে অদ্যাবধি সে পলাতক ছিলেন। গ্রেফতারকৃত অন্য আসামী মাহবুব মোল্লা জানায় যে, ঘটনার পর গ্রেফতার হয়ে প্রায় ৩ বছর জেলে ছিলেন। পরবর্তীতে জামিনে বের হয়ে চাঁদপুর থেকে পালিয়ে দেশের বিভিন্ন স্থানে নির্মাণ শ্রমিক হিসেবে কাজ করতে থাকেন।
এই নির্মম হত্যাকান্ডের ঘটনায় দন্ডপ্রাপ্ত আসামীদের মধ্যে ফাঁসির দন্ডপ্রাপ্ত ০২ জন আসামী এখনো পলাতক আছেন। পলাতক আসামীদের গ্রেফতারে র‌্যাব-১১ এর অভিযান অব্যাহত রয়েছে।

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category
© All rights reserved © 2023 Coder Boss
Design & Develop BY Coder Boss